Author: Asmania

বৃষ্টির গল্প – শাম্মী পর্ব-৩

  দূর বাবা এ কোথায় এলাম রে। ভরা বর্ষায় বাবা আর থাকার জায়গা পেল না। একে মশার কামড় তায় কারেন্ট নেই। পাটভাঙা কূর্তিটাও ভিজে একশা। মায়ের কথা রাখতে কেনই বা যে এটা পড়ল, এই ভেবে এখন দাঁত কামড়াচ্ছে কৃষ্ণা। কোথায় ঝুম বৃষ্টিতে পাবে বসে বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা দেবে। আর কোথায় এই অবন্তীপুরের চায়ের দোকান। নিদারুন রসিকতায় নিজেই একবার হেসে উঠল সে। মামা যে বলল কাকে একটা পাঠাচ্ছে। সে যে রেসিং কার চেপে আসছে কিনা কে যানে। মায়েরও বলিহারি বাবা। কাল সকালেই না হয় দিদুর কাছে যাওয়া যেত। না, এখনই যাও। উফঃ বাবা গো কি বিটকেল গন্ধ। এরা কি জামাকাপড়...

Read More

মরমিয়া এক অলীক ভোরের খোঁজে – মানস বন্দ্যোপাধ্যায়

সাগ্নিক চ্যাটার্জীর নাটক একটি অলীক ভোরের খোঁজে প্রথম থার্ড থিয়েটারের অঙ্গন থেকে প্রসেনিয়াম আসে ২০১৫র শুরুর দিকে। সাগ্নিক বাবুর কথায়  এ নাটক সেই  সকাল , সেই সময়ের কথা বলেছে যখন হয়তো এই নাটকেরই আর কোনো প্রাসঙ্গিকতা থাকবে না।  সেই সময় যখন ধর্ষণ নামক সামাজিক ব্যাধিকে মুছে ফেলবে সমাজ , বলা ভালো এই শব্দটি হারিয়ে যাবে বর্ণমালা থেকে।মহড়া দেখে মনে হয়  সেই ভোর কি সত্যিই অলীক। হয়তো নয়। নৈরাশ্য নয়  এ নাটক সুস্পষ্ট ভাবে তার বক্তব্য জানিয়েছে , সমাধানের পথ বদলাবার চেষ্টা করেছে। মরমিয়ার নাটক যারা দেখেন তারা জানেন মরমিয়া সোজা কথা সোজা ভাষায়  দর্শকের সামনে তুলে ধরতে অভ্যস্ত । বলা ভালো নিজেদের মুক্ত মন ,...

Read More

ব্রেক আপ এর পর ২ – অর্নব মন্ডল

প্রথমেই একটা কথা সবার উদ্দেশ্যে জানিয়ে দেওয়া ভাল। এটা কোনো স্বপ্ন নয়। কেন এ কথা বললাম সেটা কেউ কেউ বুঝতে পারবে আবার কেউ কেউ পারবে না। এরপর যা বলব সেটা আমার কথা। রঙ চড়িয়ে বলছি কিনা সেটা অনুমান করার দায়িত্ব আপনাদের। অনিন্দ্য কে মনে আছে? সেই যে স্বপ্ন দেখা পাগল পাগল পোলা টা। আরে আমার মত দেখতে! আচ্ছা বাদ দিন। শুরু থেকেই বলি বরং। ১ দৌড়োতে দৌড়তে খুব তাড়াতাড়ি করে ট্রেনের কামরায় ঢুকল অনিন্দ্য। তাড়াতাড়ি করে গিয়ে বসল নিজের সীটে। ও জানে সাঁতরাগাছি তে হেঁটে রেল লাইন পেরোনো টা খুব গুরুতর অপরাধ। পুলিশ ধরলে জেল অবধি হতে পারে। তাও কেমন...

Read More

কুমোরপাড়ার পুজোর গল্প – মানস বন্দ্যোপাধ্যায়

  উত্তর কলকাতার গঙ্গার ধারে কুমোরটুলি। বছরের এই সময়টা পুজোর গন্ধ গায়ে মাখতে হাজির হন অনেকেই। উৎসাহী চোখ, কিংবা ক্যামেরার ক্লিক কিংবা শিল্পীর ব্যস্ত হাতের নিঁখুত টান এই সবের কোলাজে মন্দ লাগে না। যদিও শুধু এই সময়টা নয়, সারা বছর ধরে খড়ের গায়ে মাটি লাগিয়ে চলে দেব দেবীদের মূর্তি গড়ার কাজ।  এ পাড়ায় অনেক বছর আগে থেকেই বহু লোকের বাস। উৎসাহী ছেলে ছোকরার দল আজ থেকে অনেক বছর আগেই ভেবেছিলো পাড়ার মাঝখানে একটা দুর্গাপুজো করবে। সেই পুজোর নাম কুমোরটুলি সার্বজনীন দুর্গাপুজো। এ পাড়ারই বিশিষ্ট জনদের অন্যতম ছিলেন দুর্গাচরণ  বন্দ্যোপাধ্যায়।  সেই বাড়িতে একসময় মাঝে মাঝে আসতেন সুভাষ বোস। দেশের হাল...

Read More

জানালা – সুকণ্যা সাহা

আমার বিছানা আজ আকাশে মাখামাখি হয়ে আছে , বিছানার ফুল ফুল চাদরে যেন নীল পেঁজা তুলো তুলো মেঘ, হঠাৎ করে খোলা জানালা দিয়ে আকাশ ঢুকে পড়েছে আমার বিছানায়। সাঁঝের আকাশে কনে দেখা এল পড়ে যে মায়াবী গোধূলি তৈরী হয় তার রঙ গন্ধ সব ধরা আছে দিগন্তের ফোটো ফ্রেমে। জানলা দিয়ে ঘরের ভেতর নুয়ে পড়া মাধবীলতার ডালটা তৈরী করেছে। ক্রিস্টালের ফুলদানি … আমার বালিশে চাদরে আকাশ আজ ঘুমোবে শঙ্খলাগা চাঁদের আলোয়...

Read More

Advertisements

ষ্টুডিও সহযোগী

ব্লগ সহযোগী

ইভেন্ট সহযোগী

Recent Posts

Free WordPress Themes, Free Android Games