Author: Asmania

কবিতার সাথে একদিন – সম্পূর্ণা পাল

দুপুরবেলা জানলা পাশে একলা মন আকাশ দেখা সারা হল সেই কখন এখন তবে কি করি ভাবছি তাই আমার তো আর ব্যস্ত হওয়ার কাজটা নাই শব্দ নিয়ে খেলছি এখন তাই বসে হঠাৎ দেখি কবিতাও ঠায় বসে প্রশ্ন করি আজকে বুঝি একলা এলে? শেষ না হওয়া গল্পগুলো দাও ফেলে তোমার সাথেই আজকে নাহয় ঘর করি দুজন মিলে শব্দ দিয়ে মিল গড়ি নাহয় একটা লুকিয়ে রাখা খাতার বুক তোমার আমার উঠুক জমে...

Read More

“অবিক্রিত-অবিকৃত” – রোহিত দে

কত কথা, ক্ষত কথা, প্রেমে পড়েছে পরস্পরের, সস্তার কবিতারা; অনামী কবি, ডোরাকাটা ফুটপাথ থেকে শুধু রঙিন প্রচ্ছদ কেনেন- লিটলম্যাগের বরাদ্দ উপেক্ষা আছে, আরো বেশী আছে অপেক্ষা-রা… ছেদ-যতি-পরিণতি অমিল, আছে কাপলেট আর আন্তরিক...

Read More

এক গুচ্ছ অণু-কবিতা – সৃজিতা দাস

১ ভিতে আবার ফাঁটল ধরছে দেওয়ালের ইট আলগা হচ্ছে , সিলিংও এখন দুর্বল আর ছিলো যত টান সব আজ আলগা , নেই সেই চঞ্চলতা, মেরুদন্ড প্রায় ভঙ্গুর।। ২ স্বাধীনতার বড্ডো প্রয়োজন ?? তবে হও স্বাধীন আজ থেকে, বিরক্তিতে ভরা “ধুর” গুলো থাক আমার জন্যই, আর দুস্টুমির “ওই ” টা না হয় হলো তার ।। ৩ অনিশ্চিত চরিত্র আজব ফেসবুক , অচেনা বন্ধুত্বের মাঝে সম্পর্ক গড়তে ইচ্ছুক , প্রয়োজনে বলতে পারে “তুমিই জীবন , তুমিই সব “, সময় ফুরোলে “এখন ব্যস্ত “, নির্মম বাস্তব ।। ৪ হ্যাঁ , আজ আমি শান্ত, ছিলাম না এমন টা আগে , আপনের অনুপস্থিতি , বদ্ধ এই ফ্ল্যাট , একাকিত্বের অন্ধকারে আজ আমি সোহাগের অন্বেষণে...

Read More

~দ্বিরঙা স্বপ্ন~ দেবত্তমা দত্ত

“ও মেয়ে তোর নাম কি?” ওকে জিজ্ঞেস করেনি কেউ কভু পরিচয় তো একটাই 36D শরীরী সুখে লাগে নাকি পরিচয়? প্রতিরাতে দশটা নখের ছিন্নভিন্ন হওয়া শরীর, গিল্টিসোনা আর সস্তা লিপিস্টিক মোরকে স্বপ্ন দেখে বিশ্বজয়ের। মদের তীব্র কটু গন্ধে রূদ্ধস্বাস; আরো একটু সহ্যের আশ্বাস, নেতিয়ে পরা তৃপ্ত শরীর এলিয়ে আসে; স্কারলেট রঙা দুনিয়াটা ম্যাজেন্ডা হয়ে ওঠে, “যাক এবারের মত ছেলেটা পরীক্ষায় বসবে।” বাস্তবতায় বুক বাঁধে আরো একটা দিন। ওদের নেই কোনো ভারমেলিয়ান স্বপ্ন, ওদের রামধনুরা দ্বিরঙা- “স্কারলেট ” এবং “ম্যাজেন্ডা”।।...

Read More

  মৃত্যু-ভ্রম  – অর্ণব মন্ডল

  ১ আজ কলেজ থেকে বেরোতে খুব দেরী হয়ে গেল অবিনাশবাবুর। এখন আবার ওকে দমদম গিয়ে কল্যানী সীমান্ত লোকাল ধরে বাড়ি ফিরতে হবে।আজ যে ঠিক কী কারনে এত দেরী হয়ে গেল অবিনাশ বাবুর সেটা ঠিক মনে করতে পারছিলেন না তিনি। কিছু খাতা দেখা বাকি ছিল বটে কিন্তু সে তো হাতে গোনা ৬ টা খাতা। তার জন্য এত দেরী হওয়ার তো কথা নয়। সবাই বলে বয়স হলে নাকি স্মৃতিশক্তি কমে যায়। কিন্তু ৪১ এমন কি বেশি বয়স যার জন্য স্মৃতিশক্তি লোপ পাবে! মনীন্দ্র কলেজ থেকে শ্যামবাজার মেট্রো স্টেশনটা একেবারে কাছে।স্টেশনেঢোকারসাথেসাথেইমেট্রোপেয়েযাওয়ারসময়সবেনিজের ভাগ্যকে ধন্যবাদ দিচ্ছিলেন অবিনাশ চ্যাটার্জী। এমন সময় বুকের বাঁ দিকে একটা হালকা ব্যাথা টের পেলেন তিনি। রোগ জ্বালার বালাই খুব একটা নেই ওঁর। কলেজে আজ চিকেন কাটলেট খেয়েছিলেন তার থেকেই কী কিছু সমস্যা হল? এর সাথে তিনি আরও একটা বাজে ব্যাপার লক্ষ্য করলেন। তার শার্টের পকেটের কাছে একটা লাল দাগ। সম্ভবত কাটলেট খাওয়ার সময় টমেটো সস পড়েছে। এবার একটু বিরক্ত লাগল ওঁর। একে তোআজ ৯ টা বেজে গেছে কলেজ থেকে বেরোতে বেরোতে। তার মানে বাড়ি ফিরতে ফিরতে সাড়ে দশটা বাজবে। তার ওপর সদ্য কাচা জামায় দাগ দেখলে ওনার স্ত্রী আবার একটা গোলমাল বাধাবেন। এসব ভাবতে ভাবতেই ওনার খেয়াল হল মেট্রো বেলগাছিয়া পেরিয়ে মাটির ওপর উঠতে শুরু করেছে। দরজার কাছে গিয়ে দাঁড়ালেন উনি। নেমেই দৌড়তে হবে। নাহলে ৯ টা ৫ এর ট্রেনটা পাওয়া যাবে না। এই সময় ডানদিকে চোখ পড়তেই মেয়েটাকে দেখতে পেলেন অবিনাশবাবু। আরে! এই মেয়েটাওরই ডিপার্টমেন্টেরনা! নামটা অনেক চেষ্টা...

Read More

Advertisements

ষ্টুডিও সহযোগী

ব্লগ সহযোগী

ইভেন্ট সহযোগী

Recent Posts

Free WordPress Themes, Free Android Games