ভরদুপুর
গনগ‌নে শহ‌রের রাস্তায় ফে‌রি‌দের যাওয়া-আসা,
‌নোনাজল চোখ-ঠোঁট-গলা বেয়ে
ফুটপা‌থে ভিখা‌রিটা আ‌ছে চে‌য়ে,
ক্ষুধার্ত মুখখা‌নি
এখনও খাবার জো‌টে‌নি জা‌নি
ইট-‌খোয়া-‌পি‌চের উপ‌রে, মু‌খো‌শেরা যায় স‌রে স‌রে
মৃত মানু‌ষের মে‌কি ভা‌লোবাসা।
হঠাৎ এক‌টি হাত
ছুঁয়ে দি‌লো ধূ‌লোমাখা পাত,
‌যে পাত র‌য়ে‌ছে ম‌লিন শুরুর দিনগু‌লি থে‌কে।
থালার মা‌লিকও আ‌ছে,
মলিন আতর মে‌খে, থালাটার খুব কা‌ছে,
দশ‌টি শীর্ণ আঙুল
জীর্ণ কাপড় দি‌য়ে কাঁপা হা‌তে
‌রে‌খে দেয় রু‌টিটুকু ঢে‌কে।
শহ‌রের রাত জু‌ড়ে
‌নিয়‌নেরা মা‌টি ফুঁ‌ড়ে,
ছুঁ‌য়ে ফে‌লে আকা‌শের তারা
‌সে আ‌লো জমকা‌লো, হয়‌তো বা খুব ভা‌লো!
মানু‌ষের মোহ-মায়া, পিশা‌চের আ‌লো-ছায়া
ফুটপাথে অর্ধনগ্ন, গভীর ঘু‌মে মগ্ন
ভগ্ন-হৃদ‌য়ে যারা,
তারা কে? কারা?
Facebook Comments