Month: June 2017

নরক – জগবন্ধু হালদার

ভরদুপুর গনগ‌নে শহ‌রের রাস্তায় ফে‌রি‌দের যাওয়া-আসা, ‌নোনাজল চোখ-ঠোঁট-গলা বেয়ে ফুটপা‌থে ভিখা‌রিটা আ‌ছে চে‌য়ে, ক্ষুধার্ত মুখখা‌নি এখনও খাবার জো‌টে‌নি জা‌নি ইট-‌খোয়া-‌পি‌চের উপ‌রে, মু‌খো‌শেরা যায় স‌রে স‌রে মৃত মানু‌ষের মে‌কি ভা‌লোবাসা। হঠাৎ এক‌টি হাত ছুঁয়ে দি‌লো ধূ‌লোমাখা পাত, ‌যে পাত র‌য়ে‌ছে ম‌লিন শুরুর দিনগু‌লি থে‌কে। থালার মা‌লিকও আ‌ছে, মলিন আতর মে‌খে, থালাটার খুব কা‌ছে, দশ‌টি শীর্ণ আঙুল জীর্ণ কাপড় দি‌য়ে কাঁপা হা‌তে ‌রে‌খে দেয় রু‌টিটুকু ঢে‌কে। শহ‌রের রাত জু‌ড়ে ‌নিয়‌নেরা মা‌টি ফুঁ‌ড়ে, ছুঁ‌য়ে ফে‌লে আকা‌শের তারা ‌সে আ‌লো জমকা‌লো, হয়‌তো বা খুব ভা‌লো! মানু‌ষের মোহ-মায়া, পিশা‌চের আ‌লো-ছায়া ফুটপাথে অর্ধনগ্ন, গভীর ঘু‌মে মগ্ন ভগ্ন-হৃদ‌য়ে যারা, তারা কে?...

Read More

ব্যর্থ – মোনালিসা আচার্য্য

আমি ব্যর্থ , সব দিক থেকে ব্যর্থ আমি.. এক মেয়ে হিসেবে, এক ছাত্রী হিসেবে, এমনকি এক প্রেমিকা হিসেবে। পারিনি তোমার অস্তিত্ব এর সাথে নিজেকে মেশাতে, পারিনি তোমার পদ্ধতিতে তোমাকে ভালবাসতে। তোমার ভাবনাকে নিজের ভাবনার সাথে গুলিয়ে ফেলতে পারিনি। এই ব্যর্থতাই প্রতি মুহূর্তে আঘাত করে আমার রুক্ষ বালুতটে। দীর্ঘদিন ধরে চুঁইয়ে চুঁইয়ে রক্ত ঝরে পড়ে। ক্ষনে ক্ষনেই আঘাত হানে আমার ওপর আর এই আঘাত এর ফলেই ক্ষতটা আজ বিষাক্ত হয়ে উঠেছে, নিয়েছে এক বিশাল রূপ। যা নিশি রাতে দেখা দিয়ে হারিয়ে যায় মুহূর্তের জন্য, আমি তাকে গুলিয়ে ফেলি মরিচীকার সাথে। আমার এই বালুতটে কত লোক আসে আর যায়। কিন্তু এই তট খোঁজে একজনেরই ছোঁয়া । এই রুক্ষ বালুতট আজ নিষ্প্রাণ, রংহীন, পিপাসিত, নির্জন । যদি কোনোদিন সম্ভব হয়, ফিরিয়ে দিও এর প্রাণ, ফিরিয়ে দিও তার রঙ, মিটিয়ে দিও তার পিপাসা। জেনে রেখো তার অস্তিত্বতে শুধুমাত্র তুমিই আছো, তুমিই থাকবে। ইতি এক ব্যর্থ প্রেমিকা   মোনালিসা আচার্য্য মোনালিসা আচার্য্য সাংবাদিকতা ও গণজ্ঞাপন বিভাগের স্নাতক স্তরের ছাত্রী। পড়াশুনোর পাশাপাশি লেখালিখিসহ না না সৃজনশীল কাজে...

Read More

দুশো বছর আগের বাংলা থিয়েটার এবং… – মানস বন্দ্যোপাধ্যায়

রুশ দেশের সেই মানুষটি তখন হণ্যে হয়ে খুঁজছেন তিনজন অভিনেত্রী। সময়টা অষ্টাদশ শতকের এক্কেবারে শেষ দিক। সেই সময় থিয়েটারের জন্য বাঙালি অভিনেত্রী পাওয়া প্রায় অসাধ্য ছিল। এমনকি তার বহু বহু দশক পড়েও এমনকি দুই শতাব্দী পেরিয়েও বাংলা নাট্যমঞ্চে অভিনেত্রীদের অনেকেই এসেছিলেন তথাকথিত নিষিদ্ধতার গন্ধমাখা পতিতালয় থেকে। এমনকি পুরুষ মানুষেরাও মহিলা সেজে মঞ্চ সামলানোর চেষ্টা করেছেন।  পাশাপাশি এলোকেশী , জগত্তারিণী , শ্যামা এইসব নামের অভিনেত্রীরাও বাংলা থিয়েটারে নাম করেছিলেন।বিগত কয়েক দশকের বাংলার নাট্য আন্দোলন তথা নাট্য ভাবনা নানা কারণে উদাসীন থেকেছেন এলোকেশীদের ইতিহাস নিয়ে।  আলোচ্য ঘটনাকাল অবশ্য এলোকেশীদেরও বহু আগে। রুশ দেশীয় লেবেডেফ খানিকটা ভাগ্যান্বেষণ , খানিকটা নতুন কিছু করার...

Read More

শহরের ছবি – সায়ন্তনী বসু চৌধুরী

খান দু’তিন চোঁয়া ঢেকুর সাথে করে  সেই তো ঘরে ফিরে আসা  দুপুর দুপুর… কিংবা উপোসী পাত  পেড়ে বসা  রাত বিরেতে  হুপুস হাপুস… বাজারে ঝালটা সস্তা হলে  বেকারের পাত জোড়া উল্লাস। আহা; শুরুতেই মুখ মেরে দাও রক্ষাকর্তা…. দেখি না পাবলিক কি করে টানে। তারপর; দ্বিতীয় পর্বে, যখন জলের জন্য দমবন্ধ কাকুতি মিনতি, সুযোগ বুঝে  গুড়ুম গুড়ুম বুলেট পুঁতে দাও  এক্কেবারে পাঁজরায়… শেষ সিনে  দুপুরের আকাশে কটা চিল আর শকুন… বিশ্বাস কর, বাড়িগুলো একদম ফাঁকা।। চিত্রগ্রাহকঃ চন্দনা চক্রবর্তী সায়ন্তনী বসু চৌধুরী এই সময়ের এক কথা শিল্পী।  নিয়মিত  গল্প লেখেন আজকাল , একদিন , উত্তরের সারাদিন সহ একাধিক পত্র পত্রিকায়।  কবিতা এবং ফিচারও...

Read More

‘অর্জুন’- সুকণ্যা সাহা

ওঠো পার্থ ,ধনুর্বাণ পিঠে নাও , লক্ষ্যে থাক স্থির  তোমার অপেক্ষায় আজ গোটা বাংলার রণক্লান্ত শিবির।  এ যুদ্ধতো ধর্ম যুদ্ধ নয় ,নয় কুরুক্ষেত্রের মাঠ  ক্রুশবিদ্ধ এসময়ে তুমিই আজ তিলকহীন সম্রাট।  সম্মুখে দেখ তোমার একই রক্তের উত্তরা-ধিকার  অন্ধকার সময়ের সাথে মিশে থাকা আরও গাঢ়-অন্ধকার।  সম্পর্কে বিচলিত না হয়ে পিঠে বেঁধেনাও তূণ  পূর্ব নির্ধারিত লক্ষ্যে অবিচলিত হও আজকের অর্জুন।।  সুকণ্যা...

Read More
  • 1
  • 2

Advertisements

ষ্টুডিও সহযোগী

ব্লগ সহযোগী

ইভেন্ট সহযোগী

Recent Posts

Free WordPress Themes, Free Android Games